জঙ্গিবাদ 

বর্তমান আধুনিক বিশ্ব আমাদের জীবনকে অনেক আধুনিক ও সক্রিয় করে তুলেছে। আধুনিকায়নের ফলে আমরা পৃথিবীর মানুষ আজ নানা সুবিধা ভোগ করছি। এই অবদান ভুলার মত নয়। কিন্তু আধুনিক বিশ্ব আমাদেরকে শুধুমাত্র ভালো দিকগুলো উপহার দিয়েছে তা কিন্তু নয়। প্রত্যেক জিনিসের যেমন একটা ভালো দিক আছে ঠিক তেমন একটা খারাপ দিকও আছে তার। ভালো আর খারাপের সংমিশ্রণে আমাদের সমাজ গঠিত ও নিয়ন্ত্রিত। 
এই আধুনিক সমাজেও জঙ্গিবাদ নামক অভিশাপ আমাদের পিছু হটছে না। প্রতিনিয়ত এই জঙ্গিবাদ আমাদেরকে শাস্তি দিচ্ছে। আমাদের সমাজ ও দেশকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। বিপথগামী করে দিচ্ছে আমাদের তরুণ সমাজকে। ব্যাহত করছে নৈতিক শিক্ষাব্যবস্থা। জঙ্গিবাদ শুধুমাত্র একটি সমাজ বা একটি দেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। জঙ্গিবাদের প্রভাব পরেছে পুরো বিশ্বজুড়ে।

কেনো এই জঙ্গিবাদ? কেন এই হত্যা জজ্ঞ? কে বা কারা করছে এসব জঘন্যতম কার্যকলাপ? এসব প্রশ্নের সঠিক উত্তর পাওয়াটা কষ্টসাধ্য। ইসলামের নামে যারা জঙ্গিবাদে লিপ্ত হয়, জঙ্গিবাদের নামে যারা নিরীহ মানুষ হত্যা করে তাদেরকে মুসলমান বলা হারাম। বিনাকারনে মানুষ হত্যাকারী কখনো একজন প্রকৃত মুসলমান হওয়ার অধিকার রাখে না। 

রক্তদান 

রক্তদান তুচ্ছ নহে 

বাড়াও সাহায্যের হাত,

রক্তদানে বাধা দিলে

ভাঙবো তাদের দাত। 

তুমার রক্তে বাচবে মানুষ

সবাই বলবে ধন্য,

রক্তাদানে পিছপা হলে

তুমি হবে নগণ্য। 

রক্ত দিলে হয়না ক্ষতি

সাহস রাখো মনে,

রক্তদান তুচ্ছ নহে

জানে সর্বজনে।